Education | শিক্ষাScience | বিজ্ঞান

মানবদেহ সম্পর্কে সাধারন জ্ঞান ২০২২

মানবদেহ সম্পর্কে কত তথ্যই না আমাদের অজানা!
১ . জিভ দেখে অনেক কিছু বুঝা যায়। জিভের নমুনা একেবারে অনন্য। তাই কাউকে জিভ দেখানোর সময় এটি মনে রাখবেন।
২. একটি চুল ঝুলন্ত আপেলের ওজন ধরে রাখতে পারে। তবে বিজ্ঞানীরা আপেলের মাত্রা নির্দিষ্ট করেন নি।
৩. কোনও ব্যক্তির মুখে বিদ্যমান ব্যাকটিরিয়ার সংখ্যা পৃথিবীর মোট লোক সংখ্যার সমান বা তারও বেশি।
৪. ব্যক্তির নখগুলো নরম ও ভঙ্গুর এবং চাঁদহীন হলে তা অতিরিক্ত থাইরয়েডের নির্দেশ করতে পারে।
৫. মস্তিস্কের স্পন্দনের গতি ঘন্টায় প্রায় ৪০০ কিলোমিটার।

জীবন বদলে দেওয়া উক্তি | জীবন বদলে দেয়ার মত ৭০ টি উক্তি 

আপনার NID দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে যাচাই করুন ২০২২
৬ আমাদের ধারনা চার ধরণের রক্ত রয়েছে আমাদের দেহে। আসলে রক্তের ধরন ২৯ টি। তাদের মধ্যে বিরলতম হচ্ছে বোম্বাই সাব টাইপ।
৭. মাত্র একদিনে আমাদের রক্ত ​​১৯ ৩১২ কিলোমিটার দূরত্ব ‘দৌড়ায়’।
৮. মানবদেহের সকল স্নায়ুর মোট দৈর্ঘ্য ৪৫ কিলোমিটার।
৯. একজন মানুষ প্রতিদিন প্রায় ২০০০০ বার শ্বাস নেয়।
১০. বিশ্বের প্রায় সকল লোকের চোখের পাতায় ‘ডেমোডেক্স’ নামের একটি বিশেষ ধরনের উপাদান থাকে।
১১. মানুষের চোখ ১ কোটি পর্যন্ত নানা রংয়ের মধ্যে পার্থক্য করতে পারে। কিন্তু আমাদের মস্তিষ্ক এর সবগুলো মনে রাখতে পারে না।
১২. আমাদের কান প্রায় অবিশ্বাস্য গতিতে জীবনব্যাপী বাড়তে থাকে। কান প্রতি বছর এক মিলিমিটারের এক চতুর্থাংশ পরিমাণ বৃদ্ধি পায়।
১৩. আমাদের হৃদপিণ্ড বছরে ৩৫ মিলিয়ন বার বিট দেয়।
১৪. মানবদেহ প্রতিদিন প্রায় এক মিলিয়ন ত্বকের কোষ হারিয়ে ফেলে, যার পরিমাণ বছরে ২ কিলোগ্রাম হয়।
১৫. আপনার ত্বকের প্রতি ১ বর্গ সেন্টিমিটারে প্রায় শতাধিক ব্যথা সংবেদক রয়েছে।
১৬. ছেলেদের জিহ্বার পৃষ্ঠে মেয়েদের চেয়ে স্বাদের কুঁড়ি(টেষ্ট বাট) কম থাকে।
১৭. একজন ব্যক্তি তার জীবনে গড়পড়তায় প্রায় ৩৫ টন খাদ্যগ্রহণ করে।
১৮. একজন মানুষ তার জীবনের প্রায় পাঁচ বছর দারুন সক্রিয় থাকে।
১৯. আমাদের মস্তিস্কে প্রতি সেকেন্ডে ১০০০০০ রাসায়নিক বিক্রিয়া ঘটে।
২০. আপনার হাঁচির গতি ঘন্টায় ১৬০ কিমি।
২১. হাসিতে মুখের ১৭টি পেশিকে ‘ট্রিগার’ করে। অন্যদিকে কান্নায় ৪৩ টি পেশি সক্রিয় হয়ে উঠে। তাই আরও হাসুন।
যে দেহটাকে আমরা বহন করে বেড়াই, তার সম্পর্কে কত তথ্যই না অজানা! চলুন জেনে নিই মানবদেহ সম্পর্কে অজানা, অদ্ভুত আর মজার সব তথ্য-
১. একজন মানুষের স্নায়ুতন্ত্র এত লম্বা যে তা দিয়ে পৃথিবীকে ৭ বার পেঁচানো যাবে।
২. কোন অনুভূতি স্নায়ুতন্ত্রের মধ্য দিয়ে ঘন্টায় ২০০ মাইল বেগে প্রবাহিত হয়।
৩. দেহে ও মনে অনুভূতি আসলে তা মস্তিষ্কে পৌঁছতে ০.১ সেকেন্ড সময় লাগে।
৪. একজন শিশুর জন্মের সময় হাড় থাকে ৩৫০ টি।
৫. একজন স্বাভাবিক মানুষের শরীরে চামড়ার পরিমাণ হচ্ছে ২০ বর্গফুট।
৬. একজন মানুষের রক্তের পরিমাণ তার মোট ওজনের ১৩ ভাগের এক ভাগ। অর্থাৎ ৬৫কেজি ওজন মানুষের রক্তের পরিমাণ হল ৫ কেজি।
৭. দেহে অক্সিজেন সরবরাহকারী লোহিত রক্তকণিকার পরিমাণ ২৫০০ কোটি এবং এরা ৪ মাস বাঁচে।
৮. রোগ প্রতিরোধকারী শ্বেত রক্তকণিকার সংখ্যা ২৫০ কোটি এবং এরা মাত্র ১২ ঘন্টা বাঁচে।
৯. দেহের সব শিরাকে পাশাপাশি সাজালে দেড় একর জমির প্রয়োজন হবে।
১০. ঠোঁটের ছাপ আঙুলের ছাপের মতই, একজন মানুষের ঠোঁটের ছাপও অন্য আরেক জনের ঠোঁটের ছাপের সাথে কখনো মিলবে না।
১১. মানব দেহের সবচে শক্ত হাড় হচ্ছে চোয়ালের হাড়!!
১২. ব্রেন নিজে কোন ব্যথা অনুভব করেনা যদিও ব্রেন ব্যথার অনুভূতি সরবরাহ করে!!
১৩. ব্রেন এর খুব বেশি অক্সিজেন দরকার হয় দেহের মোট প্রয়োজনীয় ক্যালরি আর অক্সিজেন এর শতকরা ২০ ভাগ এর জন্য প্রয়োজন হয়!! যদিও ব্রেন আমাদের দেহের মোট ওজনের মাত্র শতকরা ২ ভাগ
১৪. ব্রেন এর শতকরা ৮০ ভাগ পানি, এর মানে হচ্ছে আপনাকে সঠিক পরিমানে পানি গ্রহন করতে হবে ব্রেন কে কার্যক্ষম রাখতে হলে
১৫. আমরা অনেকে ভাবি, ব্রেন দিনে বেশি কার্যকর থাকে কিন্তু সেটা সত্য না আমাদের ব্রেন ঘুমের সময় বেশি কার্যকর থাকে।
১৬. টেকনিক্যাল ভাবে ব্রেন এর সব কিছু ধারন করে রাখার সামর্থ্য আছে এটা যা কিছু অনুভব করে, দেখে, পড়ে, আর শোনে।
১৭. বুদ্ধিমান ব্যক্তির বেশি তামা এবং দস্তা থাকে তাদের চুলে।
১৮. পৃথিবীতে একমাত্র মানুষই হাসতে পারে। অবশ্য হায়নারাও হাসির মতো শব্দ করে, কিন্তু হাসির মর্ম শুধু মানুষই বুঝে।
১৯. না খেয়ে মরার চেয়ে না ঘুমিয়ে আপনি আগে আগে মরতে পারেন। আপনি ১০ দিন না ঘুমালে মারা যেতে পারেন।
২০. একজন মানুষের চামড়ার ওপর রয়েছে ১ কোটি লোমকূপ।
২১. মানুষের শরীরে যে পরিমাণ চর্বি আছে তা দিয়ে ৭ টি বড় জাতের কেক তৈরি সম্ভব।
২২. মানুষের শরীরে ৬৫০ টি পেশী আছে। কোন কোন কাজে ২০০ টি পেশী সক্রিয় হয়। মুখমন্ডলে ৩০ টির বেশী পেশী আছে। হাসতে গেলে ১৫ টির বেশী পেশী সক্রিয় হয়।
২৩. একস্থান থেকে শুরু করে সমগ্র শরীর ঘুরে ঐ স্থানে ফিরে আসতে একটি রক্তকণিকা ১,০০,০০০ কিমি পথ অতিক্রম করে অর্থাৎ ২.৫ বার পৃথিবী অতিক্রম করতে পারে।
২৪. আমাদের মস্তিষ্ক প্রায় ১০,০০০ টি বিভিন্ন গন্ধ চিনতে ও মনে রাখতে পারে।
মানবদেহ নিয়ে আমাদের জল্পনা-কল্পনার শেষ নেই। যুগ যুগ ধরেই মানদেহের প্রতিটি অঙ্গ নিয়ে গবেষণা হয়ে আসছে। আর প্রতিদিনি গবেষণা থেকে বের হয়ে আসছে বিভিন্ন ধরণের অবাক করে দেয়ার মত তথ্য। চলুন আজ তাহলে জেনে নিই আমাদের দেহ সম্পর্কে এমন কিছু তথ্য যা আমাদের কাছে অজানা।
১। আমাদের দেহের রক্তে ঠিক সেই পরিমানে লবণ আছে যতটুকু লবন একটি সমুদ্রে আছে।
২। প্রতিদিন আমাদের হৃদপিণ্ড ১০০ বার আমাদের দেহে রক্ত প্রবাহিত করে।
৩। আমাদের চোখের একটি পাপড়ির বয়স ১৫০ দিন।
৪। আমাদের চোখের ওপর ভ্রুতে তে ৫০০ টি লোম আছে।
৫। আমাদের দেহে প্রায় ১০০ বিলিয়ন এর বেশি নার্ভ সেল রয়েছে।
৬। আমরা কখনোই চোখ খুলে হাঁচি দিতে পারিনা।
৭। একটি শক্ত পাথর থেকে আমাদের দেহের হাড় ৪ গুণ বেশি শক্তিশালী।
৮। আমাদের মুখে যেকোন খাবারের স্বাদ ১০ দিন পর্যন্ত থাকে।
৯। প্রতিটি মানুষ হাঁটুর ক্যাপ ছাড়া জন্মগ্রহণ করে এবং তা ২ থেকে ৬ বছর পর্যন্ত দেখা যায়না।
১০। বাচ্চারা বসন্ত কালে খুব দ্রুত বড় হয়।
১১। আমাদের চোখ সবসময় একই রকম থাকে কিন্তু কান ও নাক বৃদ্ধি পাওয়া কখনোই থেমে থাকেনা।
১২। আমরা জন্মগ্রহণ করি ৩০০ হাড় নিয়ে কিন্তু প্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ার পর আমাদের দেহে ২০৬ টি হাড় থাকে।
১৩। আমাদের মাথার খুলি ২৬ ধরণের ভিন্ন ভিন্ন হাড় দিয়ে তৈরি।
১৪। আমাদের হাতের নখে যেই পদার্থ আছে ঠিক সেই পদার্থ দিয়ে আমাদের চুল তৈরি হয়ে থাকে।
১৫। আমরা যখন হাঁচি দেই তখন আমাদের শরীরের ভিতর সমস্ত ধরণের কাজ বন্ধ হয়ে যায় এমনকি হার্টবীটও থেমে যায়।
১৬। জিভ আমাদের দেহের সবচাইতে শক্তিশালী পেশি।
১৭। একজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষ প্রতিদিন ৬ বার বাথরুমে যায়।
১৮। আমাদের মুখ থেকে পেটে খাদ্য পৌছাতে মাত্র ৭ সেকেন্ড সময় লাগে।
১৯। প্রাপ্তবয়স্কদের থেকে শিশুদের মুখে যেকোন খাবারের স্বাদ থাকে বেশি।
২০। আমরা যখন হাঁচি দেই তখন যে বাতাস বের হয় তা প্রতি ঘণ্টায় ১০০ মাইল বেগে আমাদের নাক থেকে বের হয়।
২১। আমাদের দেহের সবচেয়ে বড় হাড় হল যার ওপর নির্ভর করে আমরা বসে আছি।
২২। আমাদের শরীরের ক্ষুদ্রতম হাড় হল কানের হাড়।
২৩। রাতের তুলনায় সকালে আমাদের দেহ লম্বা হয়।
#Information: Collected.
ভুল ত্রুটি,ক্ষমাপ্রার্থী।
ভালো লাগলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারেন 👍
টাইমলাইনে রাখতে পারেন।
❤ ধন্যবাদ❤

মানব দেহের বিভিন্ন অঙ্গের কাজ
মানবদেহের ২০৬ হাড়ের নাম
মানুষের ফুসফুস কয়টি
মানবদেহের গঠন চিত্র
মানুষের শরীরে কতটি জয়েন্ট আছে
শিশুদের শরীরে কয়টি হাড় থাকে
মানবদেহের সবচেয়ে শক্তিশালী পেশী কোথায় আছে
মানুষের শরীরে কয়টি শিরা আছে

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button